1. site@64bangla.tv : admin64bangla : হেড অব নিউজ
  2. ownreporter1@64bangla.tv : নিজস্ব প্রতিবেদক : নিজস্ব প্রতিবেদক
লক্ষ্মীপুরে ভাইয়ের হত্যা মামলার বিচার চেয়ে আদালতে বোনের মামলা - ৬৪ বাংলা টিভি
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ:
ডিএনসি ঢাকা মেট্রো (উত্তর) ৩০০০ (তিন হাজার) পিস ইয়াবাসহ ভাই-বোন গ্রেফতার ডিএনসির শ্বাসরুদ্ধকর অভিযানে ৩৫ (পয়ঁত্রিশ) কেজি গাঁজাসহ ৩জন গ্রেফতার ডিএনসি কুমিল্লায় বিপুল পরিমান গাঁজা উদ্ধার কম বয়সে ক্যান্সার, সাহায্যের আবেদন ইয়াছিনের ডিএনসি ঢাকা মেট্রো কার্যালয় (দক্ষিণ), (উত্তর) ও গাইবান্ধায় বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার রংপুরের মিঠাপুকুরে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিকে গ্রেফতার রাণীশংকৈলে লাউ চাষে ব্যাপক ফলন; চড়া দামে চরম খুশি লাউচাষিরা থার্টি ফাস্ট নাইটকে ঘিরে বিশেষ অভিযানের প্রস্তুতি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের জনসভায় গণমানুষের ঢলকে প্রমাণ করেছে দেশবাসী সরকারের প্রতি আস্থাশীল:ওবায়দুল কাদের ঠাকুরগাঁওয়ে বিরল প্রজাতির একটি ছোট বাগদাশ প্রাণী উদ্ধার 

লক্ষ্মীপুরে ভাইয়ের হত্যা মামলার বিচার চেয়ে আদালতে বোনের মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময়ঃ সোমবার, ৩১ আগস্ট, ২০২০
  • ৫৫৪ বার পড়া হয়েছে
64bangla tv
64bangla tv
লক্ষ্মীপুরে রিপন নামের এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যুর আড়াই মাস পর হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের বড় বোন নাজমা আক্তার সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।এর আগে গত ৬ জুন নিজ বসত ঘর থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। রিপন লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চর রমনী মোহন ইউনিয়নের চর আলী হাসান গ্রামের জয়নাল মোল্লা বাড়ির মৃত জালাল মোল্লার ছেলে। তিনি পেশায় একজন মুদি-দোকানি ছিলেন। হত্যা মামলার এজাহারে সুত্রে জানা গেছে,অজ্ঞাতনামা আসামী করা হলেও মামলার বিবরণে সন্দেহজনক কয়েকজনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। তারা রিপনের আপন চাচা,ফুফা ও ফুফুসহ নিকট আত্মীয়। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়,গত ৬ জুন বেলা ১২টার সময় মৃত রিপনের চাচা শাহ আলম মোল্লা (৩৫),কামরুল মোল্লা (৩০),চাচী সাবিনা আক্তার (২০),ফুফা হারুন মাঝি (৫২) ও ফুফু কদবানু (৪৫) রিপনের ঘর থেকে সন্দেহজনকভাবে বের হয়ে যায়। এর পরপরই রিপনকে মৃত উদ্ধার করা হয়। মামলার স্বাক্ষী ফয়সাল হোসেন রিপনের ঘরে গিয়ে রিপনকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান। এ সময় রিপনের মৃতদেহ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলানো এবং হাঁটুসহ নীচের অংশ খাটের সাথে লেগে ছিলো। পরে রিপনের মৃহদেহ তার দাদা জয়নাল মোল্লা নামিয়ে আনে। এ সময় মৃত রিপনের শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাতের চিহৃ দেখতে পায় বাড়ির লোকজন। মামলার এজাহারে বাদি মৃত রিপনের বোন দাবি করেন, সন্দেহজনক আসামীরা তার ভাইকে অর্থের লোভে হত্যা করে থাকতে পারে। এতে তিনি উল্লেখ করেন,রিপন রাড়ির সামনে রিপানের যে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি ছিলো সেখান থেকে দোকানের মালামালসহ প্রায় সাড়ে ১০ লাখ টাকার মালামাল খোঁড়া যায়। তিনি অভিযোগ করেন,রিপন মারা যাওয়ার পর সন্দেহভাজন আসামীরা ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য মৃতদেহের ময়নাতদন্ত না করেই মৃত্যুর পরদিন ৭ জুন করব দেয়। ঘটনার সময় সন্দেহভাজনরা এটিকে আত্মহত্যা বলে প্রচার করে। কিন্তু পরবর্তীতে ঘটনার আালামত থেকে বোঝা যায় এটি আত্মহত্যা নয়, পরিকল্পিত হত্যা। অভিযোগ রয়েছে, রিপনের ঝুলন্ত মৃতদেহ নামানো পর সদর থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ মৃতদেহ নিয়ে যায়। পরে রিপনের চাচা শাহ আলম ও স্থানীয় ইউপি সদস্য দুলাল মোল্লা রিপনের মৃতদেহের ময়না তদন্ত না করার জন্য থানায় লিখিত আবেদন করেন। এর প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তাড়াতাড়ি মৃতদেহটি দাফন করার উদ্যোগ নেয় সন্দেহভাজন অভিযুক্তরা। রিপনের পরিবারের অভিযোগ, রিপন হত্যাকান্ডের শিকার হয়ে থাকতে পারে এমন ঘটনা জানার পর এ ব্যাপারে মামলার উদ্যোগ নিলে সন্দেভাজন অভিযুক্তরা রিপনের বোনদের বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করে। পরে জেলা লিগ্যাল এইড অফিসের সহযোগীতা নিয়ে এবং তাদের পরামর্শে আদালতে মামলা করেন রিপনের বড় বোন। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবু ইউছুফ ছৈয়াল জানান, রিপনের মৃত্যুটি হত্যা না আত্মহত্যা তা রহস্যময়। তাই এলাকাবাসীর সাথে একমত পোষণ করে রিপনের মৃত্যুর রহস্য উন্মোচনে লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের দাবি জানান। সোমবার এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান মিয়া বলেন, আদালত থেকে যে নির্দেশনা আসছে তার আলোকে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দয়া করে খবরটি সামাজিক মাধ্যমে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
© ৬৪বাংলা.টিভি, ২০২২ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত
Developed By Madina IT